ক্যাটরিনাই ছিলেন রণবীরের প্রেরণা

ক্যাটরিনাই ছিলেন রণবীরের প্রেরণা

রণবীর কাপুর-ক্যাটরিনা কাইফের বিচ্ছেদের ব্যাপারটা প্রকাশ্যে আসে ২০১৬-এর শুরুতে। ছয় বছরের সম্পর্ক ভেঙে যায় রণবীর-ক্যাটের। কথা ছিল হয়তো এই বছর বিয়ে হবে তাদের। আর এর মধ্যেই হয়ে যায় বিচ্ছেদ, তার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয় নানা জল্পনা।

অবশেষে এক নিউজ চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে নিজের বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে প্রথম মুখ খুললেন ঋষি পুত্র। বললেন রুপালি দুনিয়ায় তাঁর ব্যর্থতা নিয়ে, কীভাবে তিনি সেই ব্যর্থতার সঙ্গে সমঝোতা করেন সে প্রসঙ্গেও কথা বলেন তিনি।

রণবীর তাঁর সাক্ষাত্কারে নিজে মুখেই স্বীকার করেন তাঁর জীবনে ক্যাটের অবদানের কথা। রণবীরের কাছে তাঁর বাবা-মায়ের পর ক্যাটরিনাই ছিল জীবনের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা।

রণবীরের  দাবি তাদের এই বিচ্ছেদের পিছনে বিভিন্ন গুজব, তাঁদের সম্পর্কের মধ্যে তৃতীয় ব্যক্তির উপস্থিতি নিয়ে সংবাদমাধ্যমের না না খবর, এই সবকিছু বিশ্বাসকে যেন তলানিকে এনে ফেলেছিল। সেখান থেকেই ভেঙে যায় তাঁদের সম্পর্ক ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ক্যাট-রণবীরের বিচ্ছেদের পর মারাত্মক ধাক্কা খায় তাঁদের ছবি ‘জগ্গা জাসুস’-এর শ্যুটিং। শোনা যায় শ্যুটিং ছাড়া সেসময় একে অপরের সঙ্গে একটা কথাও বলতেন না তাঁরা। সাথে সাথে ধাক্কা খেয়েছিল ওই ছবির শ্যুটিং শিডিউলও।

এদিকে কয়েকদিন  আগেই ক্যাট জানিয়েছিলেন কীভাবে তিনি জীবনের বিচ্ছেদ পর্বটার সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছিলেন। প্রতিদিন দীর্ঘ সময় ক্যাট জিমে কাটাতেন। তার প্রভাব দেখা গিয়েছে ক্যাটের ‘বার বার দেখো’ ছবির ট্রেলরে। স্ক্রিন ঝলসে দিয়েছে ক্যাটের শরীরী হিল্লোল। আর এখন শুধু অপেক্ষা পুরো ছবিটি কাঁপিয়ে দিতে পারেন কিনা লাস্যময়ী ক্যাট?