ত্বকের যত্নে ফেলনা টি ব্যাগ

ত্বকের যত্নে ফেলনা টি ব্যাগ

চা তৈরির পর টি ব্যাগটি সাধারণত ফেলেই দেয়া হয় ।কিন্ত আপনি জানেন কি এই ফেলনা টি ব্যাগের আছে নানা ব্যবহার। মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি করা থেকে শুরু করে মুখের দুর্গন্ধ দূর করা যায় এই ফেলনা টি ব্যাগ দিয়ে। শুধু তাই নয় আপনার ত্বকের সমস্যা সমাধানেও জুড়ি নেই এই টি ব্যাগের।

১। দ্রুত ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি

দ্রুত ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে টি ব্যাগের নেই কোন জুড়ি।প্রথমে গ্রিন টির ব্যবহৃত টি ব্যাগটি দিয়ে চা তৈরি করে নিন। এরপর এটি ঠান্ডা হয়ে এলে এই পানীয় দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি  বেশ কয়েকবার করুন এবং  তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। লক্ষ্য করুন তাৎক্ষনিকভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পেয়ে গেছে।

২। রোদে পোড়া দাগ দূর করতে

ব্যবহৃত টি ব্যাগটি  ঠান্ডা হতে দিন। এবার এই ঠান্ডা ব্যাগটি রোদে পোড়া স্থানে লাগান। চায়ের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান কিন্ত ত্বকের সানবার্ন দূর করতে বেশ কার্যকর।

৩। চোখের ফোলাভাব এবং কালি দূরীকরণে

চোখের নিচ এবং চারপাশে ফোলা ভাব দূর করতে কুসুম গরম টি ব্যাগ চোখের নিচে রাখুন। এইভাবে ২০ মিনিট রাখুন। তারপর টি ব্যাগ ফেলে দিন। চোখের নিচের কালি দাগ দূর করার জন্যও  একইভাবে গ্রিন টির ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন।

৪। টোনার হিসেবে

একটি পাত্রে গোলাপজল দিয়ে জ্বাল দিন। এবার এতে ব্যবহৃত টি ব্যাগটি দিয়ে দিন। ৩ থেকে ৫ মিনিট জ্বাল দিন। ঠান্ডা হলে স্প্রের বোতলে ঢেলে রাখুন। স্প্রের বোতলটি ফ্রিজে রাখুন। এটি রাতে টোনার হিসেবে ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের নমনীয়তা ধরে রাখবে এবং ত্বকে বলিরেখা পড়াও রোধ করবে।

৫। সাদা চুল দূর করতে

এক কাপ গরম পানিতে তিনটি টি ব্যাগ দিয়ে জ্বাল দিন। এরপর এতে এক টেবিল চামচ রোজমেরি এবং সেইজ হার্ব মেশান। তারপর এভাবেই সারারাত রেখে দিন। শ্যাম্পু করার পর এই পানীয় দিয়ে চুলটা  ধুয়ে ফেলুন। পানি দিয়ে এটি ধুয়ে ফেলবেন না। সাদা চুল কালো করতে এটি কয়েকবার করুন।

৬। ন্যাচারাল হেয়ার হাইলাইটার

প্রাকৃতিকভাবে চুলের রং হালকা করতে টি ব্যাগ আপনাকে সাহায্য করবে। শ্যাম্পু করার পর চায়ের পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলের কন্ডিশনার এবং প্রাকৃতিক হাইলাইটার হিসেবে কাজ করবে।

৭। পায়ের দুর্গন্ধ দূর করতে

অনেকেরই পায়ে মাঝে মাঝে দুর্গন্ধ হয়ে থাকে, যা কিনা খুবই অস্বস্তিকর। এই সমস্যা দূর করতে ব্যবহার করা টি ব্যাগ প্রথমে পানিতে ফুটিয়ে নিন, সেটি ঠান্ডা করে তাতে পা ভিজিয়ে রাখুন।তারপর  ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। দেখবেন পায়ের দুর্গন্ধ দূর হয়ে গেছে।