যুক্তরাষ্ট্রের তথ্য ভাণ্ডার থেকে ৫৬ লাখ ফিঙ্গারপ্রিন্ট চুরি

যুক্তরাষ্ট্রের তথ্য ভাণ্ডার থেকে ৫৬ লাখ ফিঙ্গারপ্রিন্ট চুরি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিঙ্গার প্রিন্ট (হাতের আঙ্গুলের ছাপ) চুরির ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি দেশটির একটি হ্যাকার গ্রুপ সরকারি নেটওয়ার্ক থেকে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে কর্মরত লক্ষ লক্ষ কর্মচারীদের ফিঙ্গার প্রিন্টসহ সংশ্লিষ্ট প্রচুর পরিমাণ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সরিয়ে নিয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউজের একজন মুখপাত্র।

যুক্তরাষ্ট্রে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রথম ধারণা করা হয়েছিল খুব অল্প সংখ্যক তথ্য চুরি গেছে কিন্তু বিষয়টি খতিয়ে দেখে জানা গেছে তার কয়েক গুন বেশী তথ্য চুরি গেছে।

হোয়াইট হাউজের একটি বিবৃতিতে জানানো হয়, ৫৬ লাখের বেশি ফিঙ্গারপ্রিন্ট রেকর্ড চুরি হয়েছে সরকারের তথ্য সংগ্রহ কেন্দ্র পারসোনাল ম্যানেজমেন্ট অফিস থেকে। ঘটনার পর প্রথম তদন্তে বলা হয় প্রায় ১১ লাখ ফিঙ্গারপ্রিন্ট রেকর্ড চুরি হয়েছে। কিন্তু চূড়ান্ত তদন্তের পর জানা যায় তা প্রায় ৫৬ লাখের বেশি। সরকারের এই ডাটাবেজে প্রায় ২ কোটি ১৫ লাখ ফেডারেল কর্মীদের তথ্য সংরক্ষণ করে রাখা হয়।

হ্যাকারদের এই সাইবার হামলার কথা জানা যায় ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে। দেখা যায়, হামলাকারীরা সরকারি কর্মচারীদের ফিঙ্গারপ্রিন্ট, আইডি, স্বাস্থ্য, অর্থনীতি ও নিরাপত্তাসংক্রান্ত তথ্যাদি হাতিয়ে নিয়েছে সেখান থেকে। ম্যানেজমেন্ট অফিস যদিও চুরির পর জানানো হয়েছিল যে ওই তথ্য দিয়ে কোনো অপরাধ সংগঠনের ঝুঁকি কম, কিন্তু তারপরও পরিচয় নিরাপত্তা ঝুঁকি রয়েই গেছে। কারণ ওই তথ্যগুলো ব্যবহার করে হ্যাকাররা যেমন পারবে সরকারি কর্মীদের ব্ল্যাকমেইল করতে, তেমনি তাদের ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করে বিভিন্ন সংস্থায়ও সাইবার হামলা চালাতে পারবে তারা।

এ ঘটনায় পারসোনাল ম্যানেজমেন্ট অফিসের প্রধান ক্যাথেরিন আরচুলেটা পদত্যাগ করেন।