ভালোবাসার কোনো বয়স নেই

ভালোবাসার কোনো বয়স নেই

২৯ বছরের বয়স ব্যবধান তাদের, তাতে কি! ভালোবাসার কোনো বয়স নেই, এমন কথাতো প্রচলিতই। আর তারই যেনো আরো একবার প্রমাণ করলেন ৫২ বছর বয়সী সুপারমডেল মিলিন্দ সুমন ও অঙ্কিতা কোনওয়ার। চার বছর প্রেমের পর দীর্ঘদিনের বান্ধবী অঙ্কিতা কোনওয়ারের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন সোমন (২৩)। রোববার (২২ এপ্রিল) মহারাষ্ট্রের আলিবাগের এক রিসোর্টে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়।

এর আগে শনিবার সকালে মেহেদী অনুষ্ঠানের পর রাতে ছিল সঙ্গীতের আসর। সেই অনুষ্ঠানে নাচে অংশ নেন নবদম্পতি। পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে হলুদ ও বিয়ের সমস্ত রীতিনীতি মেনেই একে অপরের সঙ্গে পরিণয়বদ্ধ হন অঙ্কিতা-মিলিন্দ।

মিলিন্দ সুমনকে বলা হয়ে থাকে ভারতের কাঙ্ক্ষিত ও ‘ফিট’ অভিনেতা এবং মডেলদের একজন। নারী ভক্তদের জন্য মিলিন্দর এই বিয়ে এক দুঃসংবাদই বটে। মিলিন্দ মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা আর অঙ্কিতার জন্ম ও বেড়ে ওঠা আসামে। তাই বিয়ের সময় নিজেদের আঞ্চলিক রীতিকে তাঁরা দিয়েছেন সর্বোচ্চ প্রাধান্য। মহারাষ্ট্র ও আসামের ২টি রীতিতে বিয়েটি হয়েছে।

Milind Soman and Ankita Konwar get married

হিন্দি, মারাঠি ও অসমিয়া গান ও আমন্ত্রিত অতিথিদের নাচে মিলিন্দ- অঙ্কিতার বিয়ে হয়ে উঠেছিল জমজমাট। তবে অঙ্কিতা-মিলিন্দের বয়সের যতই ফারাক থাক, দুজনে দুজনের সঙ্গে যে বেশ খুশি তা তাদের দেখেই বোঝা যাচ্ছিল।

মিলিন্দ সুমন এর আগে ২০০৬ সালে এক ফরাসি মডেলকে বিয়ে করেছিলেন। সেই বিয়ে টিকে ছিল মাত্র তিন বছর। এদিকে অঙ্কিতার এটিই  প্রথম বিয়ে। একসময়ের শীর্ষ মডেল মিলিন্দ সুমনের সঙ্গে হাঁটুর বয়সী অঙ্কিতা এভাবেই জুড়ে যান।