রাজপরিবারের মেয়েকে সিনেমায় অভিনয়ের নামে কু-প্রস্তাব

রাজপরিবারের মেয়েকে সিনেমায় অভিনয়ের নামে কু-প্রস্তাব

হায়দরাবাদের রাজপরিবারের মেয়ে অদিতি রাও হায়দারি। সাত বছর বলিউডে কাজ করছেন। এবার কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুললেন বলিউড অভিনেত্রী অদিতি রাও হায়দারি। অভিনয় জগতে আসার পর তাকেও কাস্টিং কাউচের সম্মুখীন হতে হয় বলে জানান তিনি।

ক্যারিয়ারের শুরুতে অভিনয়ে সুযোগ করে দেয়ার নামে তাকে ‘কু-প্রস্তাব’ দেয়া হয়। আর কাস্টিং কাউচকে কখনোই প্রশ্রয় দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন অদিতি।

সম্প্রতি এক ইভেন্টে অদিতি রাও হায়দারি কাস্টিং কাউচ প্রসঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানান সাংবাদিকদের। বললেন, ‘আমিও এই পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে গেছি। কিন্তু নিজেকে সামলে নিয়েছি। এর জন্য প্রচুর কাজ আমার হাতছাড়া হয়ে যায়। আমি তখন শুধুই কেঁদেছি। তবে কাজ হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার জন্য কখনো কাঁদিনি। আমি কেঁদেছি, কারণ এখানে মেয়েদের সঙ্গে কী ধরনের ব্যবহার করা হয়, কী ধরনের প্রস্তাব দেওয়া হয়—এসব দেখে। কখনো ভাবিনি, আমার সঙ্গে কেউ এমন ব্যবহার করতে পারে। এই ঘটনার চার মাস পর আমি কাজে ফিরেছি।’

বলিউডের এই অভিনেত্রী বলেন, জীবনে সমস্যা থাকবেই। প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়েই সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। জীবনের কাছে হার মানলে চলবে না।

অদিতি রাও হায়দারি ২০০৬ সালে দক্ষিণী মালায়লম সিনেমা ‘প্রজাপতি’র মাধ্যমে অভিষেক লাভ করেন। এরপর বলিউডে ভূমি, ওয়াজির, পদ্মাবত’র মতো সিনেমায় দেখা গেছে তাকে। পদ্মাবত সিনেমায় আলাউদ্দিন খিলজির প্রথম স্ত্রী মেহরউন্নিসার চরিত্রে অভিনয় করেন অদিতি।